জাতীয়

চাকরি না দিয়ে টাকা আত্মসাতে দিনাজপুরে খুন : ঢাকায় গ্রেফতার ৩

দিনাজপুরের হাকিমপুর থানাধীন চাঞ্চল্যকর মেহেদী হাসান (৩৪) হত্যার মূল পরিকল্পনাকারীসহ তিন আসামিকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাপিড অ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব)। রাজধানীর উত্তরার আব্দুল্লাহপুর এলাকা থেকে বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) ভোর রাতে র‌্যাব-১ এর একটি দল তাদের গ্রেফতার করে।

গ্রেফতার তিনজন হলেন- দেলোয়ার হোসেন (২৫), মোছা. দেলোয়ারা বেগম (৪৫) ও মো. হারুন (৩৫)।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম জানান, চাকরি দেয়ার কথা বলে মেহেদী হাসানের (সনি) কাছ থেকে ৩ বছর পূর্বে ৪ লাখ টাকা নেয় মিজানুর রহমান। কিন্তু দীর্ঘদিন অতিবাহিত হওয়ার পরও চাকরি না দেয়ায় একাধিকবার টাকা ফেরত চাইলে মিজানুর রহমান তালবাহানা করতে থাকে এবং একপর্যায়ে পলাতক হয়ে আত্মগোপন করেন।

গত ৪ ডিসেম্বর সকাল সাড়ে ১০টার দিকে দেলোয়ারা বেগমের বাড়িতে যান মেহেদী। এ সময় মিজানুরের কাছে পাওনা টাকা ফেরত চাইলে উল্টো গালিগালাজ করেন। মেহেদী প্রতিবাদ করলে মিজানের নির্দেশে দেলোয়ার, হারুন ও দেলোয়ারাসহ অন্য আসামিরা মেহেদীর কপালে এবং বুকে এলোপাতাড়ি আঘাত করে পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় হাকিমপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেয়া হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওই ঘটনায় ৪ ডিসেম্বর রাতেই হাকিমপুর থানায় একটি হত্যা মামলা হয়। মামলা নং ৪। ঘটনাটি সারাদেশে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করে এবং বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে গুরুত্বের সাথে সংবাদ প্রচারিত হয়।

হত্যাকাণ্ডের পর র‌্যাব-১ তাৎক্ষণিকভাবে ছায়া তদন্ত শুরু করে। বৃহস্পতিবার ভোরে র‌্যাব-১ এর একটি দল উত্তরা পশ্চিম থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে ওই হত্যায় জড়িত দেলোয়ার হোসেন, দেলোয়ারা বেগম ও হারুনকে গ্রেফতার করে।

র‌্যাব-১ এর অধিনায়ক (সিও) লে. কর্নেল সারওয়ার-বিন-কাশেম জানান, গ্রেফতার তিনজনকে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে হত্যায় জড়িত থাকার কথা স্বীকার করেছে। তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা প্রক্রিয়াধীন। পলাতক অন্য আসামিদেরও গ্রেফতারে চেষ্টা চলছে।

সূত্রঃ জাগো নিউজ ২৪

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close