জাতীয়প্রচ্ছদ

সরকার পতনের আন্দোলন ‘ফাঁকা আওয়াজ’ বললেন তথ্যমন্ত্রী

৩০ ডিসেম্বর ‘কালো দিবস’ হিসেবে পালনের পাশাপাশি সরকারের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনের ঘোষণা দিয়েছে জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট। তাদের এমন ঘোষণা ‘ফাঁকা আওয়াজ’ বলে মন্তব্য করেছেন তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এ ধরনের ফাঁকা আওয়াজ তারা সবসময় করে আসছেন। এটিও ফাঁকা আওয়াজ ছাড়া অন্য কিছু নয়।’সচিবালয়ে নিজ দফতরে বৃহস্পতিবার (২৬ ডিসেম্বর) সমসাময়িক বিষয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এক প্রশ্নের জবাবে তিনি এমন মন্তব্য করেন।

জাতীয় ঐক্যফ্রন্টের আহ্বায়ক ও গণফোরাম সভাপতি ড. কামাল হোসেন ৩০ ডিসেম্বর-কে কালো দিবস হিসেবে পালনের ঘোষণা দিয়েছেন। পাশাপাশি তারা সরকারকে পদত্যাগ করে জাতীয় সরকার গঠনের দাবিতে দৃশ্যমান কর্মসূচি হতে নেবেন বলে জানান। এ প্রসঙ্গে হাছান মাহমুদ বলেন, ‘ঐক্যফ্রন্ট নির্বাচনে অংশগ্রহণ করেছিল, তাদের অনেকেই নির্বাচিত হয়েছেন। পাশাপাশি তারা এমপি হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছেন। সমস্ত সুযোগ-সুবিধাও নিচ্ছেন।’

‘সুতরাং যে নির্বাচনে তারা অংশগ্রহণ করে জয়লাভ করেছেন সেই নির্বাচন নিয়ে প্রশ্ন তুলে নিজের বিবেকের সঙ্গেই তারা প্রতারণা করছেন বলে প্রতিয়মান হয়। বাংলাদেশে গত ৩০ ডিসেম্বর যদি না হতো, যেটি অনেকেই চেয়েছিল, তাহলে বাংলাদেশে গাণতান্ত্রিক ধারা অব্যাহত থাকত না। বরং ৩০ ডিসেম্বরের নির্বাচন বাংলাদেশের গণতন্ত্র-কে সুসংহত করেছে।’

তথ্যমন্ত্রী বলেন, ‘গত নির্বাচনের আগে থেকেই তারা আন্দোলনের মধ্যে রয়েছেন। তারা যে ২০১৫ সালে অবরোধ করেছিলেন, সে অবরোধ কিন্তু এখনও প্রত্যাহার করেননি। তারা আন্দোলনের মধ্যে আছেন। তাদের আন্দোলনের নমুনা আমরা দেখেছি, তাদের শক্তি-সামর্থ সম্বন্ধেও জনগণ জানে। সুতরাং এ ধরনের ফাঁকা আওয়াজ তারা সবসময় করে আসছে। এটিও ফাঁকা আওয়াজ ছাড়া অন্য কিছু নয়।’

বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম গতকাল বলেছেন, ঢাকা উত্তর ও দক্ষিণ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু হবে না। আমরা জানি, তারপরও আমরা প্রার্থিতা ঘোষণা করব। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, ‘প্রথমত, নির্বাচনে বিএনপির অংশগ্রহণের ঘোষণা দেয়ায় তাদের স্বাগত জানায়। অতীতে যে সব সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন হয়েছে সেগুলো সুষ্ঠু হয়েছে। তাই আমরা বেশ কয়েকটি নির্বাচনে হেরেছি, বিএপি অনেক ক্ষেত্রে জয়ী হয়েছে।’

‘এ নির্বাচনও সুষ্ঠু, অবাধ, নিরপেক্ষ হবে বলে আমার বিশ্বাস। কারণ নির্বাচন কমিশন অত্যন্ত নিরপেক্ষভাবে ও স্বাধীনভাবে কাজ করছে। সে কারণেই অনেক নির্বাচনে আমরা পরাজিত হয়েছি। সুতরাং বিএপির অভিযোগ বরাবরের মতো অভিযোগই।’

সূত্রঃ জাগো নিউজ২৪

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close