জাতীয়

শাহজালালে ছয়গুণেরও বেশি বেড়েছে হেলথ স্ক্রিনিং

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ঠেকাতে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে যাত্রী হেলথ স্ক্রিনিং বেড়েছে। গত ২১ জুলাই থেকে ৯ ফেব্রুয়ারি সকাল ৮টা পর্যন্ত মোট ১৯ হাজার ৪৫৯ যাত্রীর হেলথ স্ক্রিনিং হয়। অথচ গত ৭ ফেব্রুয়ারি স্ক্রিনিংকৃত যাত্রীর সংখ্যা ছিল মাত্র আট হাজার ৩৯৬। অর্থাৎ দুই দিনে ১১ হাজারেরও বেশি যাত্রীর হেলথ স্ক্রিনিং করা হয়েছে।

শাহজালালআন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদফতরের সহকারী পরিচালক (এয়ারপোর্ট হেলথ অফিসার) ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ রোববার (৯ ফেব্রুয়ারি) জাগো নিউজ এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, আগে শুধুমাত্র চীন ফেরত চারটি ফ্লাইটের (চায়না সাউদার্ন, চায়না ইস্টার্ন, ড্রাগন এয়ার ও ইউএস বাংলা) যাত্রীদের থার্মাল স্ক্যানার ও ইনফ্রারেড থার্মোমিটারে (জ্বর মাপার যন্ত্র) স্ক্রিনিং করা হলেও এখন সব ফ্লাইটের যাত্রীদের স্ক্রিনিংয়ের চেষ্টা চলছে। এ কারণে স্ক্রিনিং করা যাত্রীর সংখ্যা বেড়েছে।

তিনি আরও জানান, বর্তমানে শাহজালাল বিমানবন্দরে প্রতিদিন ২৫টি ফ্লাইটে সাড়ে ১২ হাজার যাত্রী আসা-যাওয়া করে। প্রতিটি ফ্লাইটের যাত্রীদের কীভাবে স্ক্রিনিং নিশ্চিত করা যায় ও ফ্লাইট কেবিন ক্রুদের মাধ্যমে মেডিকেল ডিক্লারেশন ফর্ম, স্বাস্থ্য তথ্য কার্ড ও প্যাসেঞ্জার লোকেটর ফরম বিতরণ নিশ্চিত করা যায় তা নিয়ে রোববার সকালে বিমানবন্দরে স্বাস্থ্য অধিদফতরের কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিভিন্ন এয়ারলাইন্সের প্রতিনিধিদের বৈঠক হয়। মোট ২৫টি ফ্লাইটের মধ্যে ১৫টি ফ্লাইটের কর্মকর্তারা বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন এবং স্ক্রিনিংয়ে তারা সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Close
Close