বিনোদন

সালেহীন সাজু’র ‘অচেনা ঈদ’নেট দুনিয়ায় ভাইরাল

 ডেস্ক রিপোর্ট  আলোর বার্তা২৪বৈশ্বিক মহামারী পরিস্থিতির আলোকের মানুষের দূর্বিষহ জীবনের আনন্দ বেদনার কাব্য নিয়ে আবারো ঝড় তুলেছেন নিউইয়র্ক প্রবাসী বাংলাদেশী স্বনামধন্য কবি ও গীতিকার সুরকার সালেহীন সাজু।

‘পৃথিবীতে ফেরাও ছন্দ সুর প্রভু মানুষকে করো আহ্সান/চিরচেনা পৃথিবী আজ হয়েছে খান খান/তোমার রাহে বিলাতে জান, এসেছে কোরবান’- এমন অন্তরজুড়ানো কথায় চমৎকার সুর ও সংগীতে গতকাল সন্ধ্যায় বাজারে এসেছে ‘অচেনা ঈদ’ শিরোনামে তার ভিন্ন স্বাধের একটি গান।

গানটি কবি সালেহীন সাজুর জীবনে অনন্য এক সৃষ্টি বলে জানা গেছে। দীর্ঘ সাধনা এবং আন্তরিক যত্নে নির্মিত গানটি নিয়ে শ্রোতা মহলে এক ধরনের আগ্রহের সৃষ্ট করেছে। গানটি মুক্তির আগেই আলোচনার ঝড় তুলেছে বেশ।

এ বিষয়ে সালেহীন সাজু’ প্রতিবেককে বলেন, ‘গানটি আমার জীবনের সেরা সৃষ্টি। পরম যত্নে মানুষের আবেগ অনুভব করেই গানটি রচনা করেছি। এছাড়া সময়ের অনুভূতিটাও গানে সংযুক্ত করেছি। কবি সালেহীন সাজু জানান, ‘বিশ্ব জুড়ে কভিড-১৯’র ভয়ে শংকিত পুরো পৃথিবী। চেনা পৃথিবীটা কেমন যেন অচেনা হয়ে উঠেছে। পরিবর্তন এসেছে চিরাচরিত জীবন যাত্রায়। কিন্তু সময় বসে নেই, সময়ের হাত ধরে বছর ঘুরে আবার আমাদের দ্বারে এসেছে ঈদুল আযহা। ভাইরাসের বিস্তার ঠেকাতে পরিবর্তন এসেছে চিরাচরিত ঈদ উদযাপনেও। শত-সহস্র প্রতিকূলতার মাঝে উদযাপিত হবে এবারের ঈদ। বিধি নিষেধ এবং সীমাবদ্ধতার মাঝেও ঈদের আনন্দকে সবার সাথে ভাগাভাগি করতেই আমার উপহার- ‘অচেনা ঈদ’।

জানা যায়, গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন স্বনামধন্য শিল্পী জি এম আযহার। তার সাথে আছে এক ঝাঁক শিল্পীর কোরাস কন্ঠ গানটিকে আরো সমৃদ্ধ করেছে। সালেহীন সাজু আরো বলেন,-‘পরিবর্তনের সাথে মানিয়ে নেওয়ার নামই জীবন। আমি চেষ্টা করেছি গানের প্রতিটি লাইনে সময়কে ধারণ করতে। আশা রাখি গানটি সবার ভালো লাগবে’।

সূদুর আমেরিকায় বসে গানটির লিরিক লিখলেও গানটি সৃষ্টিতে সার্বিক সহযোগিতা করেন কবি এবং জনপ্রিয় আবৃত্তিকার রাহিম আজিমুল। পাঠকের জন্য গানটি তুলে ধরা হলো- অচেনা ঈদ গীতিকার: সালেহীন সাজু সুর: জি এম আজহার বছর জুড়ে, সবার মনে,নিজের ঘরে নির্বাসনে দেশে দেশে, সবার মনে,নিজের ঘরে নির্বাসনে দিতে প্রাণের বদলে প্রাণ,এসেছে কোরবান। ত্যাগেরই মহিমায় গাই জীবনের জয়গান বলো ঈদ মোবারক ঈদ, বলো ঈদ মোবারক ঈদ।।

যারা জীবন জুড়ে আত্মত্যাগী, গাই তাঁদেরই জয়োগান যাদের ত্যাগে উদ্ভাসিত ঈদ,তারা করলো ত্যাগের শিক্ষাদান, যারা ঝরা বনে হঠাৎ ঝড়ে অস্তাচলে গেছে চলে পূর্বাকাশের রক্তিম আভায় সেই দ্যাখো জ্বলজ্বলিয়ে তারা জ্বলে এই দূরত্ব-দূরত্ব নয়, এটাই তো কুরবান। ত্যাগেরই মহিমায় গাই জীবনের জয়গান।। আজই মলিন মদিনা শরীফ, বন্ধ মোদের কাবা ঘর, ভাবতে বুকে হয় রক্তক্ষরণ, কাঁদে মুমিনের খাঁটি অন্তর; খোদা তোমার তরে মহামারি থেকে চাই যে পরিত্রান পৃথিবীতে ফেরাও ছন্দ সুর প্রভু মানুষকে করো আহ্সান, চিরচেনা পৃথিবী আজ হয়েছে খান খান। তোমার রাহে বিলাতে জান, এসেছে কোরবান।

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button
Close
Close